September 27, 2022

শরিফুল-বিজয় সুযোগ পেলে বাদ পড়বেন কে?

২৪ জুন থেকে সেন্ট লুসিয়ায় শুরু হতে যাওয়া ওয়েস্ট ইন্ডিজ-বাংলাদেশ দ্বিতীয় টেস্টে দুই ক্রিকেটারই যদি একাদশে সুযোগ পান, তাহলে কেমন হবে দলের চিত্র?

Thank you for reading this p

ost, don't forget to subscribe!

 

 

 

হুট করে টেস্ট স্কোয়াডে ডাক পেয়েছিলেন এনামুল হক বিজয়। শরিফুল ইসলামকে টেস্ট দলে ডাকা হল আরও আকস্মিকভাবে। ২৪ জুন থেকে সেন্ট লুসিয়ায় শুরু হতে যাওয়া ওয়েস্ট ইন্ডিজ-বাংলাদেশ দ্বিতীয় টেস্টে দুই ক্রিকেটারই যদি একাদশে সুযোগ পান, তাহলে কেমন হবে দলের চিত্র? এদিকে গুঞ্জন রয়েছে, বিশ্রামে পাঠানো হতে পারে সদ্য সাবেক অধিনায়ক মুমিনুল হককে, যার সাথে একাদশে জায়গা হারাতে পারেন হইচই ফেলে টেস্টে ফেরা মুস্তাফিজুর রহমানও।

অ্যান্টিগা টেস্ট বাংলাদেশের ক্রিকেটকে আবারও হতাশা উপহার দিয়েছে। এতে মূল দায়টা ব্যাটিং ইউনিটের। একসময় যাকে দলের সবচেয়ে সফল ব্যাটার বলা হত, সেই মুমিনুল হকই ফর্মে নেই। গত ১০ ইনিংসে মুমিনুল হক দুই অঙ্কের রানের দেখা পেয়েছেন একবার। সর্বশেষ ৯ ইনিংসেই সিঙ্গেল ডিজিটে আউট হয়েছেন। ব্যাটিংয়ের ছন্দ ফিরে পেতে ছেড়েছেন অধিনায়কত্ব। তবু মুমিনুলের ব্যাট হাসছে না- হোক তা প্রস্তুতি ম্যাচ কিংবা অ্যান্টিগা টেস্ট। এই ডামাডোলের মধ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজে পৌঁছে গেছেন এনামুল হক বিজয়। এদিকে আবার মুমিনুলকে বিশ্রামে রাখার পক্ষে মত দিয়েছেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

এখানেই শেষ নয়; সেন্ট লুসিয়া টেস্টের আগে গুঞ্জন উঠছে মুস্তাফিজুর রহমানকে নিয়েও। মুস্তাফিজ টেস্ট খেলতে আগ্রহী নন- এ নিয়ে দেশের ক্রিকেটে বিস্তর আলোচনা হয়েছে। তবুও বোর্ড ও দলের চাওয়ায় অ্যান্টিগা টেস্টে খেলেছেন মুস্তাফিজ। তিন পেসারের মধ্যে তিনিই সবচেয়ে কম বল করেছেন। অবশ্য পারফরম্যান্স মুখ্য নয়, আলোচনাটা হচ্ছে মুস্তাফিজ টেস্টে আগ্রহী নন বলে।

আর মুস্তাফিজের টেস্ট খেলার অনাগ্রহ কিংবা মুমিনুলকে বিশ্রামে পাঠানোর দায়ী- দুটিই জোরালো হচ্ছে অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের বক্তব্যে।

সদ্য সাবেক অধিনায়ক মুমিনুলের অফ ফর্ম দলের জন্য দুশ্চিন্তা তো বটেই, একইসাথে ব্যাটিং অর্ডারের ব্যর্থতার অন্যতম বড় কারণ। অনেকেই তাই মুমিনুলকে কিছু দিন বিশ্রাম বা বিরতি নেওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন। এবার এ নিয়ে মুখ খুলেছেন টেস্ট অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

সাকিব জানিয়েছেন, মুমিনুল চাইলে বিশ্রাম নিতে পারেন। তিনি বলেন, ‘ও যদি মনে করে ওর বিশ্রাম দরকার আছে, সেটা হতে পারে।’ যেদিন সাকিব এই কথা বললেন, সেদিনই দলের সাথে যোগ দিলেন এনামুল হক বিজয়। ওয়ানডে ফরম্যাটের ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে রেকর্ড সংখ্যক রান সংগ্রহ করে সীমিত ওভারের দলে ডাক পেলেও টেস্টে ব্রাত্য ছিলেন অনুমিতভাবেই। তবে ইয়াসির আলীর চোট কপাল খুলে দিয়েছে বিজয়ের। বিজয় নিজেও জানিয়েছেন, দ্বিতীয় টেস্টে খেলতে মরিয়া তিনি। দুইয়ে দুইয়ে চার মেলাতে গেলে সমীকরণ বলছে- সেন্ট লুসিয়া টেস্টে বিশ্রাম দেওয়া হতে পারে মুমিনুলকে, আর একাদশে সুযোগ পেতে পারেন ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে সর্বশেষ টেস্ট খেলা বিজয়।

এদিকে ধোঁয়াশা জাগিয়েছে শরিফুলের অন্তর্ভুক্তিও। অ্যান্টিগা টেস্টে সমীহ জাগানিয়া বোলিং প্রদর্শন করেছে বাংলাদেশের পেস বোলিং ইউনিট। দ্বিতীয় টেস্টের আগে আরও শক্তি বাড়াচ্ছে পেসাররা। চোটের কারণে প্রথম টেস্ট হাতছাড়া করা তরুণ পেসার শরিফুল ইসলাম যোগ দিচ্ছেন দ্বিতীয় টেস্টের স্কোয়াডে। এর আগে ক্যারিবীয় সফরের জন্য ঘোষিত টেস্ট দলে শরিফুলের নাম থাকলেও জানানো হয়েছিল, কেবল ফিট হয়ে উঠলেই তিনি খেলার জন্য বিবেচিত হবেন।

সীমিত ওভারের সিরিজের আগেই শরিফুলকে তড়িঘড়ি করে কেন ক্যারিবিয়ানে পাঠানো হচ্ছে, তার উত্তর খুঁজছেন অনেকেই। পারফরম্যান্সের কথা বিবেচনা করলে প্রথম টেস্টের পেস বোলারদের লাইনআপে কোনো পরিবর্তন চাওয়ার কথা নয় টিম ম্যানেজমেন্টের। তবে টি-টোয়েন্টি ও ওয়ানডে সিরিজের আগে মুস্তাফিজ বিশ্রাম পেতে পারেন। এক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় ভূমিকা রাখতে পারে টেস্টে মুস্তাফিজের অনাগ্রহের বিষয়টিই। আর কিছু দিন আগে সাকিবও বলেছিলেন, জোর করে টেস্টে খেলানোর প্রয়োজন নেই মুস্তাফিজকে।

x

x